শিরোনাম

  তুরাগে শিশু শ্রমিক হত্যার বিচারের দাবীতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন   রুপগঞ্জে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা বিচারের দাবিতে মানববন্ধন   তুরাগে উত্তরা মডেল একাডেমির প্রাঙ্গণে (এসডিজির) কর্মশালা অনুষ্ঠিত   সিলেটে “দৈনিক স্বাধীন বাংলা”র প্রতিনিধি সম্মেলন ও গুণীজন সংবর্ধনা   এ সময়ের জনপ্রিয় নির্মাতা সাইফুল ভূইয়া “আর এম মিউজিক” ব্যানারে আমাদের মাঝে নতুন চমক নিয়ে আসছে   টঙ্গীর মিলগেটে ১৪টি তুলার গোডাউনের আগুন নিয়ন্ত্রণে   তুরাগে মোবাইল ও ইলেক্ট্রনিক্সের দোকানে চুরির ঘটনায় দুই চোর গ্রেফতার   দক্ষিণখানে ব্যবসায়ীকে প্রকাশে গুলি করে হত্যার অভিযোগে ৬ জন গ্রেফতার : দু’টি আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি উদ্বার   রাজধানীতে ১৪ হাজার মাস্ক বিতরণ ডিএমপি’র   রাজধানীতে ছিনতাইকারী চক্রের ১৪ সদস্য গ্রেফতার : ১৮৩ মোবাইল ফোন জব্দ

আজ বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৩২ পূর্বাহ্ন


খুলনায় জ্ঞাত আয়-বর্হিভুত সম্পদ অর্জনের মামলায় কাস্টমস হাউজের কর্মচারী রাফেজা বেগম ওরফে নাজমা হায়দার রাফিজাকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে এক কোটি ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৫ নভেম্বর) খুলনা বিভাগীয় বিশেষ আদালতের বিচারক জিয়া হায়দার এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় রাফেজা বেগম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রাফেজা বেগম চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজে কর্মরত ছিলেন। তার বাড়ি খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানা এলাকায়।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) খুলনার আইনজীবী খন্দকার মজিবর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। দুদক সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৯ এপ্রিল কাস্টমস হাউজের কর্মচারী রাফেজা বেগম ওরফে নাজমা হায়দার রাফিজার বিরুদ্ধে সোনাডাঙ্গা থানায় দুর্নীতির অভিযোগে দুদক কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে মামলা দয়ের করেন। মামলা তদন্ত করেন দুদকের আরেক কর্মকর্তা শামীম ইকবাল। রাফেজা বেগমের স্বামী এমএম জাহাঙ্গীর আলমও কাস্টমস হাউজে কর্মরত। তার বিরুদ্ধেও দুদকের মামলা রয়েছে।

দুদকের আইনজীবী খন্দকার মজিবর রহমান বলেন, রাফেজা বেগম কাস্টমসের তৃতীয় শ্রেণির একজন কর্মচারী ছিলেন। তদন্তে তার বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয় বহির্ভুত বিপুল সম্পত্তির প্রমাণ পাওয়ায় সংশ্লিষ্ট আইনের ২৬ (১) ও ২৬ (২) ধারায় কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হয়েছে। সূত্র: রাইজিংবিডি

আরও পড়ুন