শিরোনাম

  নবগঠিত ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটি বাতিলের দাবিতে বেনাপোলে সংবাদ সম্মেলন   ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধূলায় মনেযোগ দিতে হবে …যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী   টঙ্গীতে ৮শ’ পিচ ইয়াবাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার   বেনাপোল কাস্টমের হয়রানির প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে স্টাফ অ্যাসোসিয়েশন   টঙ্গীতে মোবাইলে ফেসবুক চালাতে না দেওয়ায় স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা   বেনাপোলে পুলিশের অভিযান ভারতীয় মাদক সহ আটক-৭   ভারত বাংলাদেশ মৈত্রী সাইকেল র‌্যালী দলকে বেনাপোলে সংবর্ধনা   বেনাপোলস্থ চট্রগ্রাম বিভাগীয় সমিতি’র উদ্যোগে মুক্তিযোদ্ধা ও এতিম শিশুদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ   শার্শায় বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত   উত্তরখানে বিট পুলিশিং কার্যালয় উদ্বোধন

আজ রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৭:১১ অপরাহ্


খুলনায় জ্ঞাত আয়-বর্হিভুত সম্পদ অর্জনের মামলায় কাস্টমস হাউজের কর্মচারী রাফেজা বেগম ওরফে নাজমা হায়দার রাফিজাকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে এক কোটি ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৫ নভেম্বর) খুলনা বিভাগীয় বিশেষ আদালতের বিচারক জিয়া হায়দার এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় রাফেজা বেগম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রাফেজা বেগম চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজে কর্মরত ছিলেন। তার বাড়ি খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানা এলাকায়।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) খুলনার আইনজীবী খন্দকার মজিবর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। দুদক সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৯ এপ্রিল কাস্টমস হাউজের কর্মচারী রাফেজা বেগম ওরফে নাজমা হায়দার রাফিজার বিরুদ্ধে সোনাডাঙ্গা থানায় দুর্নীতির অভিযোগে দুদক কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে মামলা দয়ের করেন। মামলা তদন্ত করেন দুদকের আরেক কর্মকর্তা শামীম ইকবাল। রাফেজা বেগমের স্বামী এমএম জাহাঙ্গীর আলমও কাস্টমস হাউজে কর্মরত। তার বিরুদ্ধেও দুদকের মামলা রয়েছে।

দুদকের আইনজীবী খন্দকার মজিবর রহমান বলেন, রাফেজা বেগম কাস্টমসের তৃতীয় শ্রেণির একজন কর্মচারী ছিলেন। তদন্তে তার বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয় বহির্ভুত বিপুল সম্পত্তির প্রমাণ পাওয়ায় সংশ্লিষ্ট আইনের ২৬ (১) ও ২৬ (২) ধারায় কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হয়েছে। সূত্র: রাইজিংবিডি

আরও পড়ুন