শিরোনাম

  তুরাগে শিশু শ্রমিক হত্যার বিচারের দাবীতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন   রুপগঞ্জে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা বিচারের দাবিতে মানববন্ধন   তুরাগে উত্তরা মডেল একাডেমির প্রাঙ্গণে (এসডিজির) কর্মশালা অনুষ্ঠিত   সিলেটে “দৈনিক স্বাধীন বাংলা”র প্রতিনিধি সম্মেলন ও গুণীজন সংবর্ধনা   এ সময়ের জনপ্রিয় নির্মাতা সাইফুল ভূইয়া “আর এম মিউজিক” ব্যানারে আমাদের মাঝে নতুন চমক নিয়ে আসছে   টঙ্গীর মিলগেটে ১৪টি তুলার গোডাউনের আগুন নিয়ন্ত্রণে   তুরাগে মোবাইল ও ইলেক্ট্রনিক্সের দোকানে চুরির ঘটনায় দুই চোর গ্রেফতার   দক্ষিণখানে ব্যবসায়ীকে প্রকাশে গুলি করে হত্যার অভিযোগে ৬ জন গ্রেফতার : দু’টি আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি উদ্বার   রাজধানীতে ১৪ হাজার মাস্ক বিতরণ ডিএমপি’র   রাজধানীতে ছিনতাইকারী চক্রের ১৪ সদস্য গ্রেফতার : ১৮৩ মোবাইল ফোন জব্দ

আজ বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৭:০৫ পূর্বাহ্ন


নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর তুরাগ থানাধীন পশ্চিম দলিপাড়া এলাকা থেকে জাহাঙ্গীর আলম তপন (৩৯) ‍নামে এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। নিহত জাহাঙ্গীর আলম তপন পশ্চিম দলিপাড়া সেক্টর ৫, রোড ৬/এ বাড়ি নং ৫০, আলহাজ্ব মোঃ এম এ হকের বাড়ির ৭ম তালা বিল্ডিং এর পঞ্চম তালার ভাড়াটিয়া ছিলেন। ঘটনাটি ঘটে সকাল আনুমানিক ১০:৪৫ মিনিটে। তবে আত্নহত্যা কারন জানা যায় নি।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বুধবার (১০ মার্চ) বিকালে ঢাকা সোহারাওয়ারর্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।
জাহাঙ্গীর আলম তপন ( ৩৯) কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম থানা এলাকার চন্ডিবেড়ি গ্রামের মৃত মিলন মিয়ার ছেলে, জানান পরিবারের সদস্যরা।

নিহতের স্ত্রী তানিয়া আফরোজা বিথী জানান, আমার সামী মানি এক্সচেঞ্জের ব্যবসা করতেন গত কাল মঙ্গলবার রাতে বাসায় এসে ভালো ভাবেই খাবার খান। পরে তাঁর ঘরে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে ঘুমানোর সময় বলে আমার সকালে কাজ আছে আমায় ডেকে দিও, অতঃপর আমি সকালে ঘুম থেকে উঠে আমার স্বামীকে ডাক দিয়ে। স্বামীর পকেট থেকে ৫০০ টাকা নিয়ে আমি জিম করার জন্য বেরিয়ে পড়ি, জিম করার এক পর্যায়ে হঠাৎ স্বামীর কথা স্মরণ হইলে স্বামীকে একাধিকবার ফোন দেওয়ার পরেও ফোন রিসিভ না করার কারণে আমি অতি দ্রুত বাসায় এসে দেখতে পায় তার এখনো রুমের দরজা বন্ধ। বাসায় থাকা কাজের বুয়া সহ বাচ্চাদেরকে জিজ্ঞেস করা মাত্র তারা বলে যে স্যার এখনো ঘুম থেকে উঠে নাই। আমি কয়েকবার দরজায় শব্দ করার পরেও দরজা না খোলার কারণে আমার সন্দেহ হয়। অতঃপর আমি সহ বাসার কাজের বুয়া আমার ভাগ্নি সহ সবাই মিলে একপর্যায়ে দরজা টা ভেঙে দেখি, আমার স্বামী ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে । এসময় কোন কিছু বুঝতে না পেরে আমি আত্মীয়-স্বজনসহ থানা পুলিশকে বিষয়টি অবগত করি। অতঃপর তুরাগ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশটি ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে এস আই নির্মল।

ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার পরে মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে, বলেন তুরাগ থানার এস আই নির্মল।

 

আরও পড়ুন